বাইকপ্রেমীদের জন্য সুখবর ! দেশে এল বাজাজের নতুন দুই মডেল, থাকছে অভিনব ফিচারস

আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বাংলাদেশ

ভারতীয় বাজাজ কোম্পানি বাংলাদেশে নিয়ে এল পালসারের পালসার N-250 এবং পালসার F-250 মডেল।

করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে দীর্ঘদিন নিয়মের বাঁধা জালে আটকে ছিল ব্যবসা-বাণিজ্য । এবার সেই জট খুলতেই ভারতের বাজাজ কোম্পানি দেশে নিয়ে এল পালসারের দুই নতুন মডেল – পালসার N-250 এবং পালসার F-250 । পালসারের এই নতুন মডেল দুটির স্টাইলিশ লুক ইতিমধ্যে বাইকপ্রেমীদের মধ্যে বেশ সাড়া ফেলেছে ।

ভারতীয় বাজাজ কোম্পানি বাংলাদেশে নিয়ে এল পালসারের পালসার N-250 এবং পালসার F-250 মডেল। বর্তমানে ভারতীয় বাজারে পালসার N-250 এর দাম ১ লাখ ৩৮ হাজার রুপি এবং পালসার F-250এর দাম ১ লাখ ৪০ হাজার রুপি । দুটি মডেলেই থাকছে আকর্ষণীয় ফিচারস । বিশেষ করে এই মডেল দুটিতে টায়ারগুলি এমনভাবে প্রস্তুত করা হয়েছে, যা রাস্তায় গ্রিপ ঠিক রাখতে পারে ।
পালসারএর এই মডেল দুটির ইঞ্জিন ২৫০ সিসির এবং ৪ স্ট্রোক অয়েল কুলড, ফুয়েল ইনজেক্টেড ইঞ্জিন। এই ইঞ্জিন ২৪.৫ শক্তি উৎপন্ন করে ও ২১.৫ নিউটন মিটার পিক টর্ক তৈরি করে। ফলে খুব দ্রুত গতি তোলা যায় । এছাড়াও পালসারের পালসার N-250 এবং পালসার F-250 মডেল দুটিতে রয়েছে এলইডি হেডলাইট। এছাড়া রয়েছে, একটি ৩০০ মিলিমিটারের ফ্রন্ট ডিস্ক এবং ২৩০ মিলিমিটারের রিয়ার ডিস্ক। ভালো গ্রিপ সমৃদ্ধ মোটা টায়ার ব্যবহার করা হয়েছে এতে। ফলে বাইক স্কিট করার সম্ভাবনা কম। বাইকের টায়ারও চওড়া।

জানা গেছে, এই মুহূর্তে, পালসার N-250 মডেলটি কেবলমাত্র একটি রঙে- টেকনো গ্রে অর্থাৎ ধূসর এবং F-250 বাইকটি দুটি রঙ – রেসিং রেড এবং টেকনো গ্রে রঙে মিলবে । অল্প বয়সী তরুণ কিম্বা যারা রাস্তায় গতি পছন্দ করেন, তাদের জন্য বাজাজের এই মডেল দুটি বেশ আকর্ষণীয় হয়ে উঠতে শুরু করেছে ।
বাজাজ পালসারের এই নতুন মডেলের বাইকে থাকছে ১৪ লিটারের ফুয়েল ট্য়াঙ্ক। পালসার N-250 এবং পালসার F-250 এর ওজন যথাক্রমে ১৬২ কেজি এবং ১৬৪ কেজি। রয়েছে, এলইডি, USB চার্জিং পয়েন্ট, পুরোপুরি টিউবলেস চাকা। সুতরাং, আর দেরি কেন, বাজাজের এই নতুন মডেলের বাইকের একটা টেস্ট ড্রাইভ করেই আসুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.