হোয়াটসঅ্যাপ কল রেকর্ড

যেভাবে কল রেকর্ড করবেন হোয়াটসঅ্যাপে

তথ্যপ্রযুক্তি
হোয়াটসঅ্যাপ, ম্যাসেনজার ছাড়া বর্তমান প্রজন্মের জীবন যেন অচল। তারা নিজের জনপ্রিয়তা আরও বৃদ্ধি করতে নিত্য নতুন ফিচার নিয়ে হাজির হচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ। হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে শুধু টেক্সট মেসেজই নয়, অডিও এবং ভিডিও কলও করতে পারেন খুব ভালভাবেই। মাঝেমধ্যে এমন হয়ে থাকে যে আপনি কাউকে হোয়াটসঅ্যাপে কল করেছেন আর সেই ব্যক্তি আপনাকে এমন কিছু জরুরি কথা বলছে যা আপনি লিখে রাখতে চান, কিন্তু সেই মুহূর্তে আপনার কাছে কলম আর কাগজ নেই। ঠিক এমন সময় দরকার হয়ে পরে কল রেকর্ড।
ব্যবহারকারীর মধ্যে অনেকেই হয়ত জানেন না যে হোয়াটসঅ্যাপেও কল রেকর্ড করা সম্ভব। এই লেখায় জেনে নিন কীভাবে হোয়াটসঅ্যাপে কল রেকর্ড করবেন। আইফোন আর অ্যান্ড্রয়েড দুটিতেই কল রেকর্ড করা যায়, তার জন্য দরকার হয় কিছু নির্দিষ্ট ডিভাইসের। উল্লেখ্য, দ্বিতীয় ব্যক্তির অনুমতি ব্যতীত কল রেকর্ড করা অনৈতিক এবং অবৈধ। এমন পরিস্থিতিতে আপনাকে অবশ্যই দ্বিতীয় ব্যক্তিকে জানাতে হবে কল রেকর্ডিং সম্পর্কে।
আইফোন ম্যাক এর সাহায্যে যেভাবে করবেন কল রেকর্ডিং— আপনি যদি আইফোন ইউজার হন আর WhatsApp এর কল রেকর্ড করতে চান তার জন্য আপনাকে আপনার আইফোনটিকে লাইটনিং কেবলের সাহায্যে MaC এর সাথে কানেক্ট করতে হবে। এর পর আপনার আইফোনে Trust this computer বলে একটি মেসেজ দেখতে পাবেন, সেখানে ক্লিক করুন।
যদি আপনি প্রথমবারের মত ম্যাকের সঙ্গে আইফোন কানেক্ট করছেন, তাহলে আপনি QuickTime ওপেন করে ফাইল সেকশনে গিয়ে আপনি New Audio রেকর্ডিং এর বিকল্প দেখতে পাবেন। সেখানে আপনি রেকর্ড বাটন এর ওখানে একটি Arrow চিহ্ন দেখতে পাবেন যা নীচের দিকে দেখাচ্ছে, সেখানে ক্লিক করে আপনার আইফোনটি খুঁজে নিন।
এই পুরো প্রসেসটি শেষ হয়ে গেলে আপনি আপনার QuickTime প্লেয়ার ওপেন করে রেকর্ড বাটন ক্লিক করে খুব সহজেই হোয়াটসঅ্যাপ কল রেকর্ড করতে পারবেন। যখন আপনি কানেক্ট হয়ে যাবেন, তখন ইউজার আইকনটিকে যোগ করে নিন। এখন আপনি যে ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলতে চাচ্ছেন তাঁকে কল করুন। অপর প্রান্তে কল রিসিভ হলেই রেকর্ডিং শুরু হয়ে যাবে আর কল শেষ হলে রেকর্ডিং বন্ধ করে ফাইলটিকে ম্যাক ডিভাইসে সেভ করে নিন।
এবার আসি অ্যান্ড্রয়েড ফোনে যেভাবে কল রেকর্ডিং করবেন— আপনি যদি অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন, তাহলে সবার প্রথমে প্লে-স্টোর থেকে কিউব কল রেকর্ডার ডাউনলোড করে নিন। অ্যাপ ওপেন করে আপনার হোয়াটসঅ্যাপ মেসেনজারে যান, এবার আপনি যে ব্যক্তির সাথে কথা বলতে চাচ্ছেন তাঁকে কল করুন। ঐ সময় যদি আপনি ফোনের স্ক্রিনে কিউব কল এর আইকনটি দেখতে পান তার মানে আপনার কল রেকর্ড হচ্ছে।
যদি আপনার ফোনে error দেখায় তাহলে কিউব কল অফ করে আবার কিউব কল রেকর্ডার অ্যাপটি ওপেন করুন। এর পর কিউব কল অ্যাপের সেটিংসে গিয়ে ভয়েস কল অপশনে গিয়ে Force Voip এ ক্লিক করুন। এই পুরো প্রসেসটি করার পরে পূর্বের মত আবার হোয়াটসঅ্যাপে কল করুন। যদি এইবারও স্ক্রিনে কিউব কল রেকর্ডারের আইকন দেখতে না পান, তার মানে হচ্ছে এটা আপনার ফোনে এই অ্যাপটি সাপোর্ট করছে না।
অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহারকারীর অন্য ভাবেও কল রেকর্ড করতে পারেন— অ্যান্ড্রয়েড ফোন ইউজারদের কাছে আরও একটি বিকল্প রয়েছে। আপনি আপনার নিজের ডিভাইসটিকে রুট করে নিতে পারেন। কিন্তু আমরা আপনাকে এই স্টেপটি ব্যবহার করার পরামর্শ দেব না। কারণ, এর এটা আপনার ফোনের সিকিউরিটির জন্য খুবই ক্ষতিকারক। এটা জানার পরেও যদি আপনি করতে চান তাহলে আপনি করতে পারেন।আপনার ফোনটিকে রুট করার পরে XDA তে যে SCR স্ক্রিন রেকর্ডার অ্যাপ পাওয়া যায় সেটা ব্যবহার করুন।
তবে WhatsApp কল রেকর্ড করার সব থেকে সহজ পদ্ধতি হল— কল করার সময় ফোনটিকে স্পিকারে দিন আর অন্য একটি ভয়েস রেকর্ডার অন করে আপনাদের কথোপকথনটি রেকর্ড করে নিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.