Fatty Heart: কী, এই অসুখ কাদের হতে পারে! ফ্যাটি হার্ট এর জন্য কেকে (Singer KK) চলে গেলেন

স্বাস্থ্য

মাত্র ৫৩ বছর বয়সে চলে গেলেন কেকে (Singer KK)। ময়না তদন্তের প্রাথমিক রিপোর্ট অনুযায়ী, হৃদরোগই প্রাণ কেড়েছে জনপ্রিয় শিল্পীর (Singer KK)। ময়নাতদন্তে দেখা গেল, কেকে-র (Singer KK), হৃৎপিণ্ডের চারপাশে চর্বির মোটা স্তর দেখতে পাওয়া গিয়েছে। হৃৎপিণ্ডের চারপাশে চর্বির মোটা স্তর দেখতে পাওয়া গিয়েছে। চিকিৎসকরা একে ‘ফ্যাটি হার্টে’র (Fatty Heart) উপসর্গ হিসেবেই মনে করছেন।

কাকে বলে ফ্যাটি হার্ট (Fatty Heart)?

হৃৎপিণ্ডের চারপাশে চর্বি জমতে শুরু। শরীরে ভিতরে এই চর্বির আস্তরণের সৃষ্টি হয়। একেই বলে ‘ফ্যাটি লিভার’(Fatty Heart) । এতে প্রদাহ বা জ্বালার সৃষ্টি হয়। যার ফলে নানা শারীরিক সমস্যা দেখা যেতে পারে।

কী কারণে এই ফ্যাটি হার্টের (Fatty Heart) সমস্যা হতে পারে?

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, খাওয়াদাওয়া এবং শরীরচর্চা। এই দু’দিকে বিশেষ নজর দেওয়া জরুরি। এ দু’টি কারণেই মূলত হয় ফ্যাটি হার্টের (Fatty Heart) সমস্যা। প্রথমে শরীরচর্চা নিয়ে কথা বলা যাক। নিয়মিত কতটা ক্যালোরি ঝরাচ্ছেন, তা খেয়াল করুন। এই অসুখটি প্রধানত জীবনযাপনের ধরনের উপর নির্ভর করে। যদি একদমই ব্যায়াম করার অভ্যাস না থাকে, তা হলে ফ্যাটি হার্টের (Fatty Heart) আশঙ্কা বাড়ে। এর পর ভাবতে হবে খাওয়াদাওয়া নিয়ে। শরীরচর্চা করে যত ক্যালোরি ঝরাচ্ছেন, তার চেয়ে বেশি কি আর্জন করছেন খাবারের থেকে? নিয়মিত কি প্রয়োজনের তুলনায় বেশি খাবার খাচ্ছেন? তা হলে হৃদ্‌যন্ত্রের চারপাশে মেদ জমছেই।

কী ভাবে বুঝবেন ফ্যাটি হার্টের (Fatty Heart) সমস্যা আছে?

কী ভাবে বুঝবেন ফ্যাটি হার্টের (Fatty Heart) সমস্যা আছে?ফ্যাটি হার্টের (Fatty Heart) সমস্যার তেমন কোনও উপসর্গ হয় না। কিন্তু হৃদ্‌যন্ত্র সংক্রান্ত অন্যান্য সমস্যা বাড়িয়ে দিতে পারে ফ্যাটি হার্ট (Fatty Heart) । তবে ফ্যাটি হার্টের (Fatty Heart) সমস্যা থাকলে তা ধরা পড়ে সিটি স্ক্যানে। কিন্তু সাধারণত ফ্যাটি হার্ট (Fatty Heart) আছে কি না, তা দেখার জন্য সিটি স্ক্যান করা হয় না। অন্যান্য সমস্যা দেখা দিলে চিকিৎসকরা বলেন, সিটি স্ক্যান করতে। তখন ধরা পড়তে পারে ফ্যাটি হার্টের (Fatty Heart) সমস্যা।

Leave a Reply

Your email address will not be published.