১ যুগের গবেষণায় ৬ ইঞ্চি কঙ্কালের রহস্য উদঘাটন করলেন বিজ্ঞানীরা

আন্তর্জাতিক দিনকাল

৫মিশালি বিডি ওয়েব ডেস্কঃ দেখতে মানুষের কঙ্কালের মত, কিন্তু এর দৈর্ঘ্য মাত্র ৬ ইঞ্চি। দেহে মাত্র ১০টি পাঁজর রয়েছে। এই ৬ ইঞ্চি মাপের কঙ্কালটি কি ভিনগ্রহের প্রাণীর (এলিয়েন)? ১ যুগেরও বেশি সময় ধরে এই প্রশ্নেরই উত্তর খুঁজছিলেন বিজ্ঞানীরা। কৌতূহল বাড়ছিল পৃথিবীতে ভিনগ্রহের প্রাণীদের ‘যাতায়াত’ নিয়ে। কয়েকটি ঘটনাকে ঘিরে এমনিতেই ভিনগ্রহের প্রাণীদের অস্তিত্ব নিয়ে বিশ্বে জোর তর্ক চলছে। এর মধ্যে ৬ ইঞ্চি মাপের ত্রিকোণা মাথার অদ্ভুতদর্শন একটি কঙ্কাল সেই জল্পনাকে আরও উসকে দিয়েছে।

২০০৩ সালে চিলির আটাকামা মরুভূমি থেকে এই কঙ্কালটি উদ্ধার হয়। নাম দেওয়া হয়েছে ‘আটা’। কঙ্কালটির মাথা শঙ্কু আকৃতির। চিলির লা নোরিয়ায় ধনসম্পদ খুঁজতে গিয়ে এই অদ্ভুতদর্শন কঙ্কালটি খুঁজে পেয়েছিলেন অস্কার মুনো নামে এক ব্যক্তি। তার পর থেকেই ৬ ইঞ্চির এই কঙ্কাল নিয়ে রহস্য বেড়েছে। কঙ্কালের আকৃতি এতটাই ছোট যে সেটিকে ছোট চামড়ার খাপে ভরে ফেলা যায়। ১৮ বছর পর সব রহস্যের পর্দা ফাঁস করলেন বিজ্ঞানীরা।

তাদের দাবি, কঙ্কালটি একটি শিশুর। আনুমানিক ৪০ বছর আগে তার মৃত্যু হয়। জিনগত সমস্যার জন্য শরীরের বিকৃত গঠন এবং হাড়ের বিকাশ ঘটেনি। বামনত্বের কারণেই এমন হয়েছে বলে মত বিজ্ঞানীদের। জন্মের পরপরই শিশুটির মৃত্যু হয়েছিল বলেও ধারণা তাদের। তবে ভিনগ্রহের  প্রাণী বলে যে জোরালো জল্পনা ঘুরে বেড়াচ্ছিল এক যুগেরও বেশি সময় ধরে তার আপাতত অবসান করলেন বিজ্ঞানীরা। তারা জানিয়েছেন, ওটা কোনো ভিনগ্রহের প্রাণী নয়, সেটি মানবসন্তানের কঙ্কাল।

সূত্র : যুক্তরাজ্যের ডেইলি স্টার, আনন্দবাজার পত্রিকা

Leave a Reply

Your email address will not be published.