ফেসবুক

ফেইসবুকের বিকল্প সোশ্যাল মিডিয়া আনছে বাংলাদেশ সরকার

তথ্যপ্রযুক্তি বাণিজ্য বাংলাদেশ
ফেসবুকের বিকল্প হিসেবে নিজস্ব সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম তৈরি করতে যাচ্ছে সরকার।‘যোগাযোগ’ নামে এই স্যোশাল মিডিয়া অ্যাপ প্লাটফর্ম তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের উদ্যোগে তৈরি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী ।

 

শনিবার উইমেন ই-কমার্স (WE) আয়োজিত এন্টারপ্রেনারশিপ মাস্টারক্লাস সিরিজ-২ এর  শুভ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানান ।

 

অনুষ্ঠানে অনলাইনে যুক্ত হয়ে তিনি বলেন – দেশকে আত্মনির্ভরশীল করার লক্ষ্যে তথ্যপ্রযুক্তি  বিভাগের উদ্যোগে ফেইসবুক এর বিকল্প হিসেবে নিজস্ব সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম  ‘যোগাযোগ’অ্যাপটি তৈরি করা হচ্ছে। এর মাধ্যমে দেশের উদ্যোক্তারা তথ্য ও উপাত্ত এবং যোগাযোগের জন্য নিজেদেরই মধ্যে একটি নিজস্ব অনলাইন মার্কেটপ্লেস এবং গ্রুপ তৈরি করতে পারবে।  উদ্যোক্তাদের আর বিদেশ নির্ভর হতে হবে না।

 

তিনি আরও জানান, তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের উদ্যোগে ইতোমধ্যেই জুম অনলাইন এর বিকল্প ‘বৈঠক’ অনলাইন প্লাটফর্ম সেই লক্ষ্যে করোনা প্রতিরোধে ভ্যাকসিন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম ‘সুরক্ষা’ অ্যাপটি তৈরি করা হয়েছে।

 

তিনি আরও বলেন নিজস্ব কমিউনিকেশন এর জন্য হোয়াটসঅ্যাপ এর বিকল্প হিসেবে ‘আলাপন’ নামের একটি প্লাটফর্মও তৈরি করা হচ্ছে। তিনি স্ট্রিমিং প্লাটফর্মসহ নিজেদের উদ্যোগে তৈরি বিভিন্ন ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মও তৈরির কার্যক্রমের বিষয়ে জানিয়েছেন।

 

২০১৮ সালেই ডিজিটাল ই-কমার্স পলিসিটি করা হয়েছে উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশের লক্ষ লক্ষ উদ্যোক্তা তৈরি করতে তরুণ এবং যুবকদের যেকোনো ধরনের নতুন নতুন উদ্ভাবনে  সরকার নীতিগতসহ বিভিন্ন ধরনের সহায়তা প্রদান করছে।

 

তিনি বলেন, আমাদের লক্ষ্য ২০২১ সালের মধ্যেই তথ্যপ্রযুক্তি সেক্টর প্রায় ২০লাখ কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা। এর মধ্যেই সফলতার সাথে প্রায় ১৫ লাখেরও বেশি কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা হয়েছে।

 

তিনি বলেন, ই-কমার্স, সফটওয়্যার, হার্ডওয়ার, বিপিও সেক্টর মিলে ২০২১ সালের মধ্যেই ২০ লক্ষাধিকেও বেশি কর্মসংস্থানের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করা সম্ভব হবে বলা ধারণা করা হচ্ছে। এ ছাড়া ২০২৫ সালের মধ্যেই প্রায় ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার রপ্তানি থেক আয় করা সম্ভব হবে।

 

তিনি আরও বলেন, উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য প্রথম চ্যালেঞ্জ ঝুঁকি নেয়ার মত সাহস থাকা। তিনি সততা ,নিষ্ঠার এবং স্বচ্ছতার সাথে  উদ্ভাবনে নিজেদের আরও নিয়োজিত করতে  নারী উদ্যোক্তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

 

অনুষ্ঠানে অন্যান্যর মধ্যে তথ্যপ্রযুক্তি অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক, সিল্ক গ্লোবালের সিইও ও WE এর বৈশ্বিক উপদেষ্টা সৌম্য বসু, WE এর প্রতিষ্ঠাতা এবং সভাপতি, উইয়ের উপদেষ্টা কবির সাকিব বক্তব্য রাখেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.