pegasus spyware

পেগাসাস স্পাইওয়্যারের নজরদারি সনাক্ত করেছে গবেষকরা

আন্তর্জাতিক তথ্যপ্রযুক্তি
ইজরায়েলি সংস্থা NSO গ্রুপের তৈরি pegasus spyware নিয়ে ইদানীং তুমুল আলোচনা ও সমালোচনা চলছে বিশ্বব্যাপী। অভিযোগ উঠেছে যে গোটা বিশ্বের কয়েক হাজার সরকারি কর্মচারি, সাংবাদিক এবং বড় রাজনীতিবিদের ফোনের তথ্যও ফাঁস করেছে এ স্পাইওয়ারটি।

 

সম্প্রতি একটি আন্তর্জাতিক কনসোর্টিয়াম স্মার্টফোন পেগাসাসে আক্রান্ত হওয়ার কিছু লক্ষণও প্রকাশ করেছে, কিন্তু সেগুলোও যথেষ্ট নয়। এছাড়াও অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের গবেষকরাও একটি টুল কিট তৈরি করেছেন যা দিয়ে কোনো ধরনের ফোন পেগাসাসের নজরদারি রয়েছে কি না সেটা বোঝা যাবে, অন্তত এমনটাই দাবিও করেছেন গবেষকরা।
মোবাইল ভেরিফিকেশন টুল কিট অথবা MVT নামে পরিচিত এই টুল কিটটি সনাক্ত করতে সহযোগিতা করবে কোনো ফোন হ্যাকিং সফ্টওয়্যারের নজরদারিতে রয়েছে কিনা। মূলত এই উদ্দেশ্যেই এই টুলটি বিশেষ ভাবে বানানো হয়েছে। এটি অ্যাড্রয়েড ও আইফোন ডিভাইজে কাজ করবে ।

 

গবেষকদের দাবি সেটগুলো থেকে আইফোনের সেট গুলোতে যেহেতু তুলনামূলক বেশি ফরেনসিক সাইনের অ্যাক্সেস রয়েছে এজন্য অ্যাপেলের ফোনগুলোতে পেগাসাসে আক্রান্ত হওয়ার লক্ষণগুলোই তাড়াতাড়ি সনাক্ত করা যায়।
পেগাসাস সাইন খুঁজে বার করার জন্য প্রথমেই ব্যবহারকারীকে যেটা করতে হবে তা হলো নিজের স্মার্ট ফোনের সমস্ত ডেটা ব্যাকআপে নিয়ে রাখতে হবে। এরপর এমটিভ ডেক্রিপ্টের সাহায্যে আপনার ফোনের ডেটাগুলোতে দেখতে হবে যে তার মধ্যে পেগাসাসের কোনো ইন্ডিকেটর রয়েছে কিনা। আইফোনের ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ ডাম্প ফাইল সিস্টেমেও পেগাসাস বিশ্লেষণের জন্য ব্যবহার করা যায়।
বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে বর্তমানে এই এমটিভির কিছু কমান্ড লাইনের জ্ঞানও দরকার যাতে সময়ের সঙ্গে একটি পুরো গ্রাফিকাল ইউজার ইন্টারফেস পাওয়া যেতে পারে সাথে সাথে। এই টুল কোডটি  হচ্ছে একটি ওপেন সোর্স এবং গিটহাব আইটি সার্ভিসের সমস্ত ডকুমেন্ট এর সাথে কার্যকর।
একবার ব্যাকআপ তৈরি হয়ে গেলে এমটিভি ডোমেইন এবং বাইনারির সাহায্যে পরিচিত কিছু সংখ্যক সূচক ব্যবহারের মাধ্যমে পেগাসাসের পরিচিত সহজেই খুঁজে বের করার চেষ্টা করে। এই টুল ডিক্রিপ্টিং আইফোন ব্যাকআপও তৈরি করতে পারে যদি সেটা এনক্রিপটেড অবস্থায় থাকে। এছাড়াও এটি পর্যবেক্ষণ করতে পারে যে অ্যাড্রয়েড ডিভাইসে ইনস্টল করা অ্যাপ্লিকেশনের তথ্যগুলোকে।
অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের সহযোগিতায় প্যারিসের একটি সংবাদ সংস্থাও পঞ্চাশ হাজারেরও বেশি ফোন নম্বর সনাক্ত করেছিল। যার মধ্যে প্রায় ৫০টি দেশের ১০০০টিরও বেশি ব্যক্তির নম্বরের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে, যেগুলো পেগাসাস স্পাইওয়্যার দ্বারাই আক্রান্ত।
pegasus spyware
pegasus spyware App
pegasus spyware Apk
pegasus spyware software

Leave a Reply

Your email address will not be published.